লুব্রিকেন্ট জেল কি ব্যবহার করা নিরাপদ?

লুব্রিকেন্ট জেল কি?

লুব্রিকেন্ট জেল হল এক ধরনের হালকা তরল জাতীয় পদার্থ যা মূলত যৌন সঙ্গমের সময় আরামদায়ক এবং যৌনাঙ্গ পিচ্ছিল কারী হিসেবে ব্যবহার করা হয়। বাজারে অনেক ধরনের লুব্রিকেন্ট জেল পাওয়া যায়। সেগুলোর মধ্যে বেশিরভাগই অত্যন্ত ক্ষতিকর। লুব্রিকেন্ট জেল ব্যবহার করা নিরাপদ কি না, কেন এটি ক্ষতিকর এবং কোন ধরনের লুব্রিকেন্ট জেল আমাদের ব্যবহার করা উচিত সে সম্পর্কে জেনে নিন।

 

লুব্রিকেন্ট জেল কি ব্যবহার করা নিরাপদ?

এক কথায় উত্তর হল হ্যাঁ নিরাপদ। কিন্তু লুব্রিকেন্ট জেল ব্যবহারের ক্ষেত্রে আপনাকে বাজার থেকে ক্ষতিকর উপাদানমুক্ত জেল কিনতে হবে। কারণ বাজারে যে সকল জেল কিনতে পাওয়া যায় সেগুলো বেশিরভাগই এমন সব উপাদান দিয়ে তৈরি যা ব্যবহার করার কারণে যৌনাঙ্গে বিভিন্ন ধরনের রোগের সৃষ্টি হয়ে থাকে। অননুমোদিত এবং যেকোনো ধরনের জেল ব্যবহারের কারণে যৌনাঙ্গে ঘা চুলকানি বা এলার্জি এবং সাদাস্রাব এর মত সমস্যা হতে পারে।

তাছাড়া গবেষণায় দেখা গেছে যে সহবাসের সময় যদি থুথু বা কয়েক ধরনের লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করা হয় তাহলে সন্তান ধারণের সম্ভাবনা একেবারে কমে যেতে পারে। কারণ সহবাসের সময় যোনিতে বীর্যপাত এর পরে শুক্রাণু যোনিপথ দিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে ডিম্বাণুর সাথে মিলিত হয় এবং সেখান থেকেই সন্তানের ভ্রূণ সৃষ্টির হয়। কিন্তু থুতু বা কিছু কিছু লুব্রিকেন্ট শুক্রাণুর এই চলাচলের গতি একেবারে কমিয়ে দিয়ে থাকে।

তাই সাবধানতা বসন্ত মুখের থুতু এবং এসকল লুব্রিকেন্ট এর ব্যবহার পরিহার করার পরামর্শ দিচ্ছেন আমেরিকান সোসাইটি ফর রিপ্রোডাক্টিভ মেডিসিন

 

নিরাপদ লুব্রিকেন্ট জেল কিভাবে চিনবেন?

নিরাপদ এবং কোন ধরনের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া মুক্ত লুব্রিকেন্ট জেল বাজার থেকে কেনার আগে অবশ্যই প্যাকেটের গায়ে দেখে নেবেন Hydroxyethyl cellulose -based লেখাটি আছে কিনা। যদি থাকে তাহলে আপনি নিশ্চিন্তে এই লুব্রিকেন্ট ব্যবহার করতে পারবেন। অন্যথায় লুব্রিকেন্ট জেল ব্যবহার আপনার ভবিষ্যৎ সন্তান ধারণের ক্ষেত্রে হুমকি হয়ে দাঁড়াতে পারে।

 

 

লুব্রিকেন্ট জেল ছাড়াই পিচ্ছিল করার উপায় কি?

সহবাসের ক্ষেত্রে আমাদের যথাসম্ভব লুব্রিকেন্ট জেল এর ব্যবহার পরিহার করা উচিত। লুব্রিকেন্ট জেল সাধারণত ব্যবহার করা হয় সহবাসকালীন সময়ে যৌনাঙ্গ শুকিয়ে যাবার কারণে। যৌনাঙ্গ যেন শুকিয়ে না যায় সে কারণে যৌনাঙ্গের পূর্বে ফোরপ্লে করার মাধ্যমে আপনার সঙ্গিনীকে উত্তেজিত করে নিন। এতে করে আপনার সঙ্গিনীর যৌনাঙ্গ সহজেই পিচ্ছিল হয়ে যাবে এবং সহবাস হয়ে উঠবে সবচেয়ে আনন্দময়।

 

তবে দীর্ঘ সময় সহবাস করার কারণে যদি যৌনাঙ্গ শুকিয়ে যায় তবে থুতু বা বাজারের অন্যান্য ক্ষতিকর জেল ব্যবহার না করে উপরে বর্ণিত লুব্রিকেন্ট জেল ব্যবহার করার জন্য উৎসাহিত করা হলো।

library_booksRelated medical and medicine article

মাসিক মিস হওয়ার কত দিন পর প্রেগন্যান্ট বোঝা যায়

মাসিক মিস হওয়ার কত দিন পর প্রেগন্যান্ট বোঝা যায়

প্রশ্ন হল মাসিক মিস হওয়ার কত দিন পর প্রেগন্যান্ট বোঝা যায় ? পিরিয়ড বা মাসিকের তারিখ পার হয়ে যাবার পর...Continue

শুক্রাণু বৃদ্ধির উপায়

শুক্রাণু বৃদ্ধির উপায় | শুক্রাণু বৃদ্ধির ঔষধের নাম কী

আজকের লেখায় আমরা জানবো বীর্যে শুক্রাণু বৃদ্ধির উপায়, শুক্রাণু বৃদ্ধির ঔষধের নাম, স্পার্ম বৃদ্ধির ঔষধ, শুক্রাণু বৃদ্ধিকারক খাবার ও ব্যায়াম...Continue

লিঙ্গ বড় করার উপায় পুরুষাঙ্গের ব্যায়াম

স্থায়ীভাবে পুরুষাঙ্গ বৃদ্ধির উপায় । পুরুষাঙ্গের ব্যায়াম | লিঙ্গ বড় করার উপায়

পুরুষাঙ্গের ব্যায়াম, পুরুষাঙ্গ বৃদ্ধির উপায় বা লিঙ্গ বড় করার উপায় বলতে সবচেয়ে কার্যকরী যে পদ্ধতিটিকে বোঝানো হয় সেটি হল পরিমিত...Continue

দিনে কতবার মিলন করা যায়

দিনে কতবার মিলন করা যায়?

দিনে কতবার মিলন করা যায় এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া অত্যন্ত কঠিন একটি ব্যাপার। চিকিৎসা বিজ্ঞানে এখন পর্যন্ত এমন কোন সুনির্দিষ্ট...Continue

arrow_right_alt